নারী অঙ্গন: পারিবারিক টুকিটাকি কাজে টুথপেস্ট এর ব্যবহার

পারিবারিক টুকিটাকি কাজে

টুথপেস্ট এর ব্যবহার 

ঘরের ছোট -খাট সব সমস্যার সমাধান সব সময় মহিলাদেরই খুঁজতে হয় ।আর এ ব্যপারগুলো এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব না। তাই আসুন জানি একটা সাধারণ জিনিষের কিছু অসাধারণই ব্যবহার। যার নাম টুথপেস্ট এর ছোট-খাট ব্যবহার আমরা অনেকেই জানি তবুও লিখাটার উপর একটু চোখ বুলিয়ে নিলে ক্ষতি কি? বরং ভুলে যাওয়া টিপসগুলি আরেকবার ঝালাই করে নেয়া আর কি :)।

১। পেঁয়াজ বা এই ধরনের গন্ধ যুক্ত কিছু কাটার পরে দুর্গন্ধ দূর করতে হাতে টুথপেস্ট মাখুন।

২। অনেক শখ করে কেনা আপনার লেদারের জুতাতে যখন কোন দাগ পড়ে, তখন হয়তো আপনার মনেও দাগ পড়ে। চিন্তা নেই, অল্প একটু টুথপেস্ট পারে তা দূর করতে। দাগ পড়া জায়গাতে টুথপেস্ট লাগান তারপর একটি ভেজা নরম কাপড় দিয়ে সেই জায়গাটি পরিষ্কার করে নিন। দেখবেন আপনার জুতা চকচক করছে।


৩ । বাচ্চাদের দুধ খাওয়ার বোতলে মানে ফিডারে টক গন্ধ হওয়া খুব স্বাভাবিক একটা ঘটনা।কিন্তু টুথপেস্ট থাকলে এই দুর্গন্ধ দূর করা এক নিমিষের ব্যাপার। ফিডারের ভেতরটা টুথপেস্ট দিয়ে খুব ভালভাবে ধুয়ে নিন। তবে অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন যাতে ফিডারের ভেতরে টুথপেস্ট জমা না থাকে।

৪। আপনি যদি ব্রণের সমস্যায় ভুগেন,তাহলে আক্রান্ত স্থানে নন-জেল এবং নন হোয়াইটেনিং টুথপেস্ট লাগিয়ে রাতে ঘুমাতে যান। টুথপেস্ট ব্রণের জলীয় অংশ শুষে নেয় এবং তেল টেনে নেয়। তবে একটা ব্যাপারে সতর্ক না হলেই নয়।আপনার ত্বক টুথপেস্টের ব্যাপারে সংবেদনশীল হতে পারে।তাই প্রথমে ত্বকের ক্ষুদ্র অংশে প্রয়োগ করুন।

৫। আপনি যদি কাঠের কাজ, স্কুবাডাইভিং বা স্কিং করেন তবে চশমার অস্বচ্ছ গ্লাস আপনার জন্য বিরক্তির সেই সাথে বিপদজনকও হয়ে উঠতে পারে। এই ধরনের সমস্যা এড়াতে গগলসের গ্লাসটি টুথপেস্ট দিয়ে ভালভাবে পরিষ্কার করে নিন।

৬। দাঁত ব্রাশ করা ছাড়া টুথপেস্ট আর যে কাজের জন্য সবচাইতে বেশি ব্যবহার করা হয়,তা হচ্ছে পোড়া যাওয়া জায়গায় ব্যবহার করা। এটি ফোস্কা পড়া প্রতিরোধ করে।

৭। একইভাবে আপনি কোন বিষাক্ত পোকার কামড়ের শিকার হলে হলে আক্রান্ত জায়গায় টুথপেস্ট ব্যবহারে সুফল পেতে পারেন।

৮। আপনার কাপড়ে যদি কালি কিংবা লিপিস্টিক লাগে,তবে সেখানে একটু টুথপেস্ট লাগিয়ে নিন এবং কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন।

৯। এমনকি আপনার সিডিতে যদি স্ক্র্যাচ পরে তবে হাল্কা একটু  টুথপেস্ট লাগিয়ে নিন এবং ঘষুন।

১০। হীরের গয়না ও পরিষ্কার করতে টুথব্রাশে একটু টুথপেস্ট লাগিয়ে নিন এবং তারপর হাল্কাভাবে ঘষে ধুয়ে নিন।দেখবেন কেমন ঝলমল করছে গয়না।একইভাবে আপনার ঘরের সিলভারের তৈজসপত্রের ঔজ্জল্য বাড়াতে পারেন ছোট বাচ্চারা ঘরের দেওয়ালকে প্রায় সময় নিজের আঁকার ক্যানভাস মনে করে আর  সেক্ষেত্রে আপনি একটুকরো আর্দ্র কাপড়ে টুথপেস্ট লাগিয়ে মুছে দেখতে পারেন।

১২। মিষ্টি পানীয় অর্থাৎ কোক কিংবা সফট ড্রিঙ্কস কাচের উপর শুকিয়ে দাগের সৃষ্টি করে। ভেজা ন্যাকড়ায় টুথপেস্ট লাগিয়ে সেখানে ঘষুন। দেখবেন দাগ উধাও!

১৩। আপনার নখের কোনা পরিষ্কারে টুথপেস্টের চাইতে ভাল কিছু খুঁজে পাওয়া দুষ্কর!

আরেকটা ব্যপার যা না বললেই নয় ,(ব্ল্যাকহেডস /হোয়াইটহেডস ) মুখের এ সমস্যা গুলি থেকেও কিছুটা দূর করার উপায় রয়েছে ,

টুথ পেস্ট আর লবণ মিশিয়ে নাকে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। তারপর ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন নাকে কোন ব্ল্যাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস নেই।

***তথ্যগুলো নেট থেকে নেয়া হয়েছে**

3 thoughts on “নারী অঙ্গন: পারিবারিক টুকিটাকি কাজে টুথপেস্ট এর ব্যবহার

  1. আসসালামু আলাইকুম, হাদি ভাই, টুথপেসট এর গুনাগুন জেনে উপকৃত হলাম।কিন্তু তার চেয়ে বেশি লাভবান হল টুথপেসট কুম্পানি,তাদের ভাল বিজ্ঞাপনের জন্য। তারা আপনাকে খুজবে পুরসকার দেওয়ার জন্য ।

  2. আসসালামু আলাইকুম,
    গাড়ির কাঁচ এবং হেডলাইট ঘোলা হয়ে গেলে টুথপেষ্ট দিয়ে পরিস্কার করলে খুব ভালো পরিস্কার হয়।

আপনার মতামত বা প্রশ্ন লিখুন।

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s