‘তাওহীদের কিশতী’ সংগ্রহে রাখার মত আরেকটি বই

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ।
যদি প্রশ্ন করা হয় মুসলিম জীবনে সব চেয়ে বড় ফরয কী? উত্তর হবে
তাওহীদ ।
-যদি প্রশ্ন করা হয় এমন কোন বিষয় যার উপর মানুষের ইহ-পরকালিন মুক্তি চূড়ান্ত ভাবে নির্ভর করছে? উত্তর হবে তাওহীদ।
-যদি প্রশ্ন করা হয় কোন বিষয়টি না থাকলে কোন আমলই আল্লাহর দরবারে গ্রহণীয় হবে না। উত্তর হবে তা হল তাওহীদ।
-যদি জানতে চাওয়া হয় এমন কোন বিষয় যার মাধ্যমে জাতি-ধর্ম, বর্ণ, গোত্র, ভাষা, অঞ্চল ইত্যাদি পার্থক্য সত্তেও সকল শ্রেণীর মানুষ এক সূত্রে গ্রথিত হয়। উত্তর হবে তাওহীদ।
-যদি প্রশ্ন করা হয় কোন কারণে মুসলিম ও অমুসলিমের মাঝে পার্থক্য তৈরি হয়? তার একমাত্র উত্তর হবে তাওহীদ।

মোটকথা, এ তাওহীদ তথা আল্লাহর একত্ববাদ মুসলিম জীবনের প্রথম এবং শেষ কাজ। কবরের আযাব, হাশর-নশর, কিয়ামতের দিন মানুষের হিসাব-নিকাশ, পুলসিরাত, জান্নাত ও জাহান্নাম সব কিছুই আবর্তিত হয় এই তাওহীদকে কেন্দ্র করে। যুগে যুগে অসংখ্য নবী-রাসূল দুনিয়ার বুকে এসেছিলেন এই একটি উদ্দেশ্যে তথা মানবতাকে আল্লাহর একত্ববাদ গ্রহণ করার দাওয়াত দিতে। যুগে যুগে অনেক আসমানী কিতাব অবতীর্ণ হওয়ার মূল উদ্দেশ্যও মূলত এটিই।
অথচ দুঃখ জনক ব্যাপার হল…এ বিষয়টির আলোচনা আমাদের মাঝে প্রায় অনুপস্থিত এবং আমাদের সমাজে তাওহীদ বিষয়ক বই-পুস্তকও খুবই নগণ্য। আশ্চর্য জনক হলেও সত্য যে, আমাদের দেশের সাধারণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তো দূরের কথা ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর অধিকাংশই তাওহীদের শিক্ষা থেকে বঞ্চিত। (দু একটি ছাড়া) তাওহীদ বা আক্বীদাহ্‌ নামে কোন বিষয় সিলেবাস ভুক্ত রয়েছে এমন প্রতিষ্ঠান খুঁজে পাওয়া দূরহ। বরং এমন অনেক মাদরাসা পাবেন, যা বিভিন্ন মাজার-কবরকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে। অথচ উক্ত মাজার সমূহে সার্বক্ষণিক অনুষ্ঠিত হচ্ছে তাওহীদ বিরোধী শিরকের মহড়া। অবাধে পদদলিত হচ্ছে আল্লাহ্‌র অধিকার।
এ বইটিতে লেখক অত্যন্ত সুন্দর ভাবে তাওহীদের বিষয়গুলো উপস্থাপন করেছেন। যা থেকে সহজেই উপলব্ধি করা যায় তাওহীদের প্রকৃত রূপ কি এবং বর্তমান মুসলমানদের বাস্তব পরিস্থিতি কোন পর্যায়ে? এতে রয়েছে তাওহীদ বিষয়ক ছোট গল্প। বিভিন্ন চমৎকার ঘটনা। এভাবে আকর্ষণীয়ভাবে বইটি সাজানো হয়েছে। বইটি মূলত: আরবী ভাষায় রচিত। লিখেছেন সৌদি আরবের প্রখ্যাত আলেম ডঃ মুহাম্মাদ বিন আব্দুর রহমান আল উরাইফী আর অনুবাদ করেছেন বিশিষ্ট দাঈ শাইখ মুহা: আব্দুল্লাহ্‌ আল কাফী, অনার্স: মদীনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, সৌদি আরব।
প্রকাশনায়: জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার। উল্লেখ্য যে, ইতোপূর্বে বইটি জুবাইল দাওয়াহ সেন্টারের পক্ষ থেকে হাজার হাজার কপি বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। পৃষ্ঠা সংখ্যা: ১০২
তাই এই গুরুত্বপূর্ণ বইটির পিডিএফ ভার্সনটি সালাফী বিডির পাঠকদের জন্য প্রদান করা হল। আশা করি আমরা বইটি থেকে উপকৃত হতে পারব। আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে সঠিক দ্বীনের উপর চলার তাওফীক দান করুন।

আরও অন্যান্য বই পেতে এখানে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ।

3 thoughts on “‘তাওহীদের কিশতী’ সংগ্রহে রাখার মত আরেকটি বই

আপনার মতামত বা প্রশ্ন লিখুন।

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s